রাহে বেলায়েত বই রিভিউ

বইয়ের নাম: রাহে বেলায়েত
লেখক: ড.খোন্দকার আবদুল্লাহ জাহাঙ্গীর (রাহিমাহুল্লাহ)

জীবনের কোনো এক ঝঞ্ঝাবিক্ষুব্ধ দিনে মরীচিকা ঘেরা এই দুনিয়ার পিছে ছুটতে থাকা আপনি হঠাৎ বুঝতে পারলেন আপনার মন জুড়ে বিরাজ করছে কেবলই শূন্যতা! দুনিয়ায় একজন মানুষের যা যা চাওয়ার থাকে তার সব পেয়েও আপনার মনে হচ্ছে আপনার কী যেন নেই! সীমাহীন দুশ্চিন্তা আর পেরেশানিতে আপনি হয়ে পড়েছেন পানি ছাড়া মাছের মতোই অসহায়। এভাবেই আপনি উপলব্ধি করলেন আপনি আপনার রব্ব থেকে বহু দূরে চলে এসেছেন.. সেই রব্ব থেকে যাঁর উদারতা আর ভালোবাসার কাছে জগতের সব কিছু নিতান্তই তুচ্ছ। তখনই আপনার মনে হলো, ‘আমি যদি এতশত জাগতিকভার মুক্ত হয়ে আমার রব্বের কাছে ফিরে যেতে পারতাম! যদি তাঁর নিকটে পৌঁছুতে পারতাম! ততটা নিকটে, যতটা নৈকট্য পেলে তাকে বন্ধুত্ব বলা যায়! যদি আমি আমার স্নেহময় রব্ব, আল ওয়াদুদের ওলী হতে পারতাম! যে পথ ধরে চললে পরে তাঁর নৈকট্যে পৌঁছা যায়, যদি আমি সেই পথটির সন্ধান পেয়ে যেতাম!!’

ঠিক এমনই কোনো মুহূর্তে আপনি এমনই এক বাতিঘরের সন্ধান পেলেন, যা আপনাকে দেখিয়ে দিচ্ছে আল ওয়াদুদের নৈকট্যের পথটি! বলুন তো, আপনি তখন কী করবেন? কতটা ভালোলাগায় আপনার মন ভরে যাবে?! কতটা কৃতজ্ঞতায় আল ওয়াদুদের স্মরণেই ঝরে পড়বে ক’ফোটা উষ্ণ অশ্রু!?
‘রাহে বেলায়াত’, ড. খোন্দকার আব্দুল্লাহ জাহাঙ্গীর (রাহিমাহুল্লাহ) রচিত এমনই একটি গ্রন্থ, যা আমাদেরকে আল্লাহর বেলায়াতের পথটিকেই চিনিয়ে দেয়! বইটির নামটিই ‘রাহে বেলায়াত’ তথা বেলায়াতের পথে! এটা সেই রব্বের বেলায়াতের পথ দেখায় যে রব্বের বেলায়াত পেলে আপনার সব সুখ পাওয়া হয়ে যায়! যে প্রেমময়ের প্রেম পেলে আপনার সব দুঃখ-কষ্ট নিমিষেই বিলীন হয়ে যায়! জাগতিক চাপে ভারাক্রান্ত আপনার এই হৃদয়টিই অনিঃশেষ মুক্ত বাতাসের সন্ধান পেয়ে যায়…! আপনার একসময়ের ঘুণেধরা জীবনটিই এই ভালোবাসার ছোঁয়ায় চিরদিনের মতো সফল হয়ে যায়!!!

বইটিতে যা আছে:
এ বইটি মূলতই আল্লাহর নৈকট্য অর্জন করে তাঁর খুব কাছের একজন বান্দা হওয়ার উপায় নিয়ে কথা বলে। তা হলো আল্লাহর প্রতি ইমান এনে সকল হারাম কাজগুলো থেকে দূরে থেকে তাঁর ফরজ ইবাদাতগুলি পালন করার পাশাপাশি সুন্নাহসম্মত নফল ইবাদাতগুলি বেশি বেশি করা।

Please put your valuable comment here (Leave a Reply)

%d bloggers like this: